ডুয়েট এডমিশন এর আগে জেনে নিন DUET সম্পর্কে

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের উচ্চশিক্ষার একমাত্র আশা ভরসার নাম ডুয়েট। পলিটেকনিক পড়ুয়া হাজারো ইঞ্জিনিয়ারের স্বপ্ন এই প্রাণের ক্যাম্পাসে যেন মাথা গোঁজার ঠায় হয়। প্রতি বছর ডুয়েটে প্রায় ৬২০ জন ছাত্রছাত্রী প্রকৌশল এবং স্থাপত্যবিদ্যায় স্নাতক ডিগ্রী অর্জনের জন্য ভর্তি হয়ে থাকে। ডুয়েট এডমিশন পরীক্ষায় প্রায় ১০০০০ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে মাত্র ৬% ছাত্রছাত্রী এখানে ভর্তির সুযোগ পেয়ে থাকে। যার অর্থ ডুয়েট এডমিশন মোটেও সহজ কথা নয়। আর এদিকে আবার ডুয়েট নিয়ে আছে অজস্র ভুঁইফোড় গুজব। চলুন ডুয়েট পড়ুয়া এক প্রকৌশলীর কাছ থেকে স্বপ্নের ক্যাম্পাস DUET সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

প্রশ্ন:- DUET আসলে কি?
উত্তর:- DUET এর পূর্ণ অর্থ Dhaka University of Engineering and Technology.
প্রশ্ন:- DUET এ কখন পড়তে হয়?
উত্তর:- ৪ বছরের ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং সম্পন্ন করার পর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং করার জন্য পড়তে হয়।
প্রশ্ন:- DUET এ ভর্তি হতে কত পয়েন্ট থাকতে হয়?
উত্তর:- এসএসসিতে জিপিএ ৩:০০ এবং ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং এ সিজিপিএ ৩:০০ থাকতে হবে।
প্রশ্ন:- DUET থেকে বিএসসি করতে কত বছর সময় লাগে?
উত্তর:- DUET থেকে বিএসসি করত ৩.৫ বছর সময় লাগে।
ডুয়েট এডমিশন
প্রশ্ন:- DUET পড়তে হলে কি প্রাইভেট বা সরকারি পলিটেকনিক বা টেকনিক্যাল কলেজ হিসেবে কোন সমস্যা হবে ?
উত্তর:- সমস্যা হবে না। সবাই ডুয়েটে ভর্তির যোগ্য।
প্রশ্ন:- DUET কিভাবে ভর্তি হতে হবে?
উত্তর:- DUET এ ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে চান্স পেতে হবে।
প্রশ্ন:- DUET আমি কি চান্স পাব?
উত্তর:- হ্যা আপনি চান্স পেতে পারেন। তবে এটা নির্ভর করবে আপনি নিজেকে কিভাবে পড়াশুনার মাধ্যমে তৈরি করবেন।
প্রশ্ন:- DUET এ কোন কোন ডিপার্টমেন্ট আছে?
উত্তর:- সিভিল-১২০ সিট, মেকানিক্যাল-১২০, ইইই-১২০, সিএসই -১২০, টেক্সটাইল-৬০, আর্টিকিটেকচার-৩০, ফুড-৩০, আইপিই-৩০
প্রশ্ন:- DUET অন্যান্য ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীরা কি পড়তে পারবে না?
উত্তর:- পারবে। তবে তাকে ডিপার্টমেন্ট পরিবর্তন করতে হবে।
প্রশ্ন:- DUET এ চান্স পেতে কখন থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করা উচিৎ?
উত্তর:- আপনি বর্তমানে যে সেমিস্টারে আছেন এই সেমিস্টার থেকে এখনই শুরু করুন।
 
ডুয়েট সম্পর্কে এ তথ্যগুলো আপনাদের জানিয়েছেন…
মোঃ মেহেদী হাসান তামিম (Mehedi Hasan Tamim)
সিভিল ইন্জিনিয়ারিং, ডুয়েট

২০১৩ সালে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্রদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে তৈরি করা হয় ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ফেসবুক গ্রুপ। আমরা দীর্ঘ ৭ বছর ধরে ইঞ্জিনিয়ারদের নানাবিধ সমস্যার সমাধান করে আসছি। চাকুরি পড়াশুনা থেকে শুরু করে যারা ইঞ্জিনিয়ার হতে চান তাদের সু-পরামর্শ প্রদান করা আমাদের প্রধান উদ্দেশ্য। স্বাগতম জানাই আমাদের ফেসবুক গ্রুপে, এইখানে ক্লিক করে এখনি জয়েন করে নিন। আশা করি একে অপরের সাথে সৌজন্যমুলক আচারণ করে ইঞ্জিনিয়ার ভাইদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন।